আগস্ট মাস। বাঙালি জাতির শোকের মাস। নিদারুণ হতাশা, অসহ্য যন্ত্রণা, সীমাহীন বেদনা আর কষ্টের মাস। এ কষ্টের কোনো উপমা নেই, এই বেদনার কোনো দৃষ্টান্ত নেই। একমাত্র উপমা দু’চোখের জল। হৃদয়ের নীল ঝড়।15-08-2015
রক্তের আখরে লেখা আগস্টের প্রথম দিন আজ। ১৯৭৫ সালের এ মাসেই বাঙালি হারিয়েছে স্বাধীন বাংলাদেশের মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। ১৫ আগস্ট কালরাতে কিছু বিপথগামী সেনাসদস্য শুধু বঙ্গবন্ধুকেই হত্যা করেনি, একাত্তরের পরাজিতদের ইন্ধনে এসব ঘৃণ্য নরপশু একে একে হত্যা করেছে বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিণী বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব, বঙ্গবন্ধুর ছেলে শেখ কামাল শেখ জামাল, শিশুপুত্র শেখ রাসেল, পুত্রবধূ সুলতানা কামাল ও রোজি জামালসহ বঙ্গবন্ধুর ভাই শেখ নাসেরকে। আরো হত্যাকাণ্ডের শিকার হন বঙ্গবন্ধুর ভাগ্নে যুবনেতা ও সাংবাদিক শেখ ফজলুল হক মণি ও তার স্ত্রী বেগম আরজু মণি, বঙ্গবন্ধুর ভগ্নিপতি আবদুর রব সেরনিয়াবাত, তার ছোট মেয়ে বেবী সেরনিয়াবাত, ছোট ছেলে আরিফ সেরনিয়াবাত, নাতি সুকান্ত আবদুল্লাহ বাবু, শহীদ সেরনিয়াবাত, আবদুল নঈম খান রিন্টু, বঙ্গবন্ধুর প্রধান নিরাপত্তা অফিসার কর্নেল জামিল উদ্দিন আহমেদ। পঁচাত্তরের ঘাতকরা সেদিনের ভয়ঙ্কর কালরাতে শুধু জাতির পিতাকেই হত্যা করেনিÑ হত্যা করেছে বাঙালি জাতির দীর্ঘদিনের স্বপ্নসাধ, আশা-আকাক্সক্ষাকেও। আগস্টকে আরো শোকাবহ করে তুলেছে ২১ আগস্ট বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সমাবেশে গ্রেনেড হামলা।
প্রতিবারের মতো এবারো বাঙালি জাতির সঙ্গে আওয়ামী লীগ ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন উপলক্ষে ৪০ দিনব্যাপী ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। গতকাল মধ্য রাতে মোমবাতি প্রজ্বালনের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিক কর্মসূচি শুরু হয়। স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোল্লা আবু কাউছার ও সাধারণ সম্পাদক পংকজ দেবনাথ এবং ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসাইন এতে উপস্থিত ছিলেন। আজ দুপুর ১২টায় আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হবে। সকালে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল গোপালগঞ্জের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করবে। বিকেল সাড়ে ৪টায় বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে কৃষক লীগের রক্তদান কর্মসূচি পালিত হবে। এতে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের বিভিন্ন উদ্যোগের ফলে এবার শোক দিবস পালনে নানা কর্মসূচির মধ্যে বাড়তি আকর্ষণ হিসেবে আগস্টের ১২ তারিখে বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হবে ‘রংতুলিতে শোকগাথা’। দেশবরেণ্য চিত্রশিল্পীরা এতে অংশ নেবেন। এ ছাড়া ৪০তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে আওয়ামী লীগ এবার ৪০ দিনের কর্মসূচি নিয়েছে। ১৫ আগস্টকে ঘিরে মাসব্যাপী আলোচনা সভার আয়োজন করবে আওয়ামী লীগ তার সহযোগী বিভিন্ন সংগঠন।

SOURCEManobkantha
SHARE

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY