Textech-bd-2016---PressCon-টেক্সটাইল ও ক্লথিং শিল্প ও এর ব্যবসার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সর্ববৃহৎ প্রদর্শনী ‘ঢাকা আন্তর্জাতিক টেক্সটাইল ও গার্মেন্ট যন্ত্রপাতি প্রদর্শনী-২০১৭’ শুরু হচ্ছে ২৩ ফেব্রুয়ারি। ঢাকার শেরেবাংলা নগরে অবস্থিত বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ১৪তম বারের মতো এ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে। বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিলস অ্যাসোসিয়েশনের (বিটিএমএ) এবং চ্যান চ্যাও ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানি লি. ও ইয়র্কার্স ট্রেড অ্যান্ড মার্কেটিং সার্ভিস কোম্পানি লি. যৌথভাবে আন্তর্জাতিক এই প্রদর্শনীর আয়োজন করতে যাচ্ছে। সোমবার বিটিএমএ’র এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এবারের মেলায় বিশ্বের ৩৩ দেশের প্রায় ১ হাজার মেশিনারি প্রস্তুতকারক কোম্পানি অংশ নিচ্ছে। অংশগ্রহণকারীরা টেক্সটাইল ও গার্মেন্ট খাতের প্রসেসিং, প্রডাকশনের সঙ্গে সম্পৃক্ত স্পিনিং, উইভিং প্রদর্শনীর পাশাপাশি উন্নত কারিগরির উৎকর্ষ সম্পর্কিত তথ্যাদি আদান-প্রদান করবে।
প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণ করতে যাচ্ছে অস্ট্রিয়া, বাংলাদেশ, চীন, চেক রিপাবলিক, ডেনমার্ক, ফিনল্যান্ড, ফ্রান্স, জার্মানি, গ্রিস, ব্রাজিল, হংকং, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, ইতালি, রোমানিয়া, পোল্যান্ড, পর্তুগাল, বেলজিয়াম, জাপান, কোরিয়া, মালয়েশিয়া, নেদারল্যান্ডস, পাকিস্তান, সিঙ্গাপুর, স্পেন, শ্রীলংকা, আয়ারল্যান্ড, সুইডেন, সুইজারল্যান্ড, তাইওয়ান, থাইল্যান্ড, তুরস্ক, যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র প্রভৃতি।
এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিলস অ্যাসোসিয়েশনের (বিটিএমএ) সভাপতি তপন চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশের প্রাইমারি টেক্সটাইল খাতের বিকাশের পাশাপাশি রফতানিমুখী পোশাক শিল্পের ব্যাপক উন্নতির ফলে এ দেশের অর্থনীতিতে ব্যাপক পরিবর্তন হচ্ছে। বর্তমানে চীনের পর বাংলাদেশ বিশ্বের সর্ববৃহৎ পোশাক রফতানিকারক দেশে পরিণত হয়েছে, যা কিনা দেশের জিডিপিতে প্রায় ১৩ শতাংশ অবদান রাখছে। পোশাক ও টেক্সটাইল শিল্পের মেলাটি আয়োজনের শুরু থেকেই বিদেশী প্রতিষ্ঠান ও ভিজিটরদের জন্য বাংলাদেশ অত্যন্ত পরিচিতি পেয়ে আসছে। আমরা মনে করি মেলায় আগত বিভিন্ন দর্শনার্থী অত্যাধুনিক মেশিনারির উৎসগুলো সম্পর্কে প্রয়োজনীয় ধারণা লাভের পাশাপাশি এ প্রদর্শনীর মাধ্যমে পণ্য উৎপাদনকারী, তাদের প্রতিনিধি ও সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা তাদের শিল্পকারখানার জন্য উন্নতমানের যন্ত্রপাতি, ইকুইপমেন্ট ও যন্ত্রাংশ সম্পর্কে সম্যক ধারণা লাভ করে উপকৃত হবেন।

SOURCEjugantor
SHARE

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY